বাঙালি, বর্ষা আর খিচুড়ি: সারাদিন জমে ক্ষীর

বাঙালির কাছে বর্ষা মানেই খিচুড়ি। একদিকে বৃষ্টি আর অন্যদিকে কবজি ডুবিয়ে খিচুড়ির সঙ্গে বেগুনভাজা, পাপড়ভাজা আর ডিমভাজা। সঙ্গে যদি ইলিশ মাছ ভাজা এসে জোটে তাহলে তো কথাই নেই। ভূরিভোজ ভুঁড়িভোজ সব একাকার। ভোজন রসিক বাঙালির জিভে জল আনতে নেট বাজার জুড়ে হাজারো রকমের খিচুড়ির রেসিপি ঘুরে বেড়ায়। আজ আমরাও আমাদের রান্নাঘরে অন্য স্বাদের এক খিচুড়ির গল্প শোনাব। দেখুন কেমন লাগে।

নারকেল দিয়ে খিচুড়ি

উপকরণ :
১। গোবিন্দভোগ চাল ৪ কাপ,
২। গোটা মুগ ৪ কাপ,
৩। এক চামচ ঘি এবং এক চামচ সাদা তেল,
৪। ছোট একটি নারকেলের অর্ধেক কোরানো।,
৫। গোটা জিরে ১ চামচ, তেজপাতা ২-৩টি,
৬। লবঙ্গ, দারচিনি ও এলাচ একসঙ্গে গুঁড়ো করে ১ চামচ,
৬। কয়েকটি কারিপাতা
৭। কাঁচালঙ্কা ৪টি,
৮। কাজুবাদাম কয়েকটি,
৯। আদাবাটা ১/২ চামচ,
১০। নুন এবং চিনি স্বাদমতো,

রান্নার প্রণালী:

মুগ ডাল প্রথমে একটু ভেজে নিন শুকনো খোলায়। পরে ধুয়ে রাখুন একটি পাত্রে।
চাল ও ধুয়ে নিন। আভেনে পাত্র বসান। ১চামচ সাদা তেল দিন। তেল গরম হলে একে একে গোটা জিরে, তেজপাতা, কারিপাতা দিন। সুন্দর গন্ধ উঠলে ডাল দিন। আদাবাটা দিয়ে একটু নাড়াচাড়া করুন। পরিমাণমতো নুন, মিষ্টিও দেবেন। এবার দিন ৩ কাপের মতো জল। ঢাকা দিন। গ্যাস একটু কমিয়ে রাখবেন। মিনিট ১৫ পরে ঢাকনা খুলে দেখুন কতটা সিদ্ধ হয়েছে। এবার নারকেল কোরা আর চাল দিন সঙ্গে একটু জল। আর কাঁচালঙ্কা ৪টি মাঝখান থেকে চিরে দিন। কাজুবাদামগুলোও এই সময় দেবেন। আবার মিনিট ১০ আঁচ কমিয়ে রাখুন। মাঝে মাঝে ঢাকনা খুলে নেড়ে দেবেন। নইলে পাত্রের তলায় লেগে যেতে পারে। মনে করলে প্রেসার কুকার ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে ৩-৪ টি সিটি দেবেন, পরে নারকেল এবং কাজুবাদাম দিয়ে আবার একটি সিটি দেবেন।
এবার ১০ মিনিট পরে ঢাকনা খুলে দেখুন চাল ডাল সিদ্ধ হযে গেছে। ১ চামচ ঘি এবং ১ চামচ গরমমশলা ছড়িয়ে দিন। কয়েক সেকেন্ড অল্প আঁচে নেড়ে ঢাকা দিয়ে আঁচ বন্ধ করে দিন। হয়ে গেল নারকেল দিয়ে খিচুড়ি। রং সাদা হয় বলে অনেকেই সাদা খিচুড়ি বলে।
পুজোপার্বনে উপোস থাকলে এই খিচুড়ি খেতে পারেন। একদম অন্যরকমের স্বাদ পাবেন।
গরম গরম খিচুড়ি সঙ্গে বেগুন, পাপড়ভাজা অথবা যারা আমিষ পছন্দ করেন তাঁরা ডিম বা মাছ ভাজা দিয়ে খেয়ে দেখুন। সম্পুর্ন ভিন্ন স্বাদের এক অন্য রকমের খিচুড়ি।

 

সৌজন্যে: গুগুল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *